Windows Live CD

Live CD কি সেটা আমার মনে হয় সবাই জানেন। তার পর ও বলছি, এই সিডিগুলো থেকে অপারেটিং সিস্টেম সরাসরি লোড হতে পারে। এর ফলে আপনি ইনস্টল না করেই কোন একটা অপারেটিং সিস্টেমের ফীচারগুলো দেখতে পারবেন। যারা পিসি ট্রাবলশুটিংয়ের কাজ করে তাদের জন্য উইন্ডোজ এক্সপির লাইভ সিডি একটি খুবই প্রয়োজনীয় জিনিস। অনেক সময় পিসি চলাকালীন বিদ্যুৎ চলে গেলে পরেরবার আর উইন্ডোজ রান হয় না। “Inaccessible Boot Device” এরর দেখায়। বিশেষ করে ইউন্ডোজ ২০০০ এ এই সমস্যাটা বেশি দেখা যায়। এই ক্ষেত্রে এক্সপির লাইভ সিডি দিয়ে পিসি বুট করে কমান্ড প্রম্পট থেকে chkdsk/f c: চালালেই সমাধান হয়ে যায়। এছাড়া ও ধরুন, ভাইরাস বা অন্য কারণে উইন্ডোজ ক্র্যাশ করেছে। C: ড্রাইভ ফরম্যাট করতে হবে। কিন্তু C: ড্রাইভে আপনার কিছু ডেটা রয়ে গেছে। এই ক্ষেত্রে লাইভ সিডি দিয়ে পিসি বুট করে ডেটাগুলো C: থেকে কপি করে অন্য ড্রাইভে সরিয়ে নিতে পারেন। যাইহোক, এই রকম অনেক কাজেই লাইভ সিডির প্রয়োজন হয়।
খুব সহজেই আপনি উইন্ডোজ এক্সপির একটা লাইভ সিডি তৈরী করতে পারেন। এজন্য নিচের ধাপগুলো অনুসরন করুন:
১. এই লিংক থেকে Pebuilder সফটওয়্যারটি ডাউনলোড করে ইনস্টল করুন।
২. Internet থেকে xpe-1.0.7.cab ফাইলটি ডাউনলোড করুন। Google search দিলেই পেয়ে যাবেন।
৩. Windows XP এর সেটাপ সিডিটি সিডি ড্রাইবে দিন। Pebuilder চালু করুন। Source: এ সিডিরমটি সিলেক্ট করে দিন। Output: এ লিখুন XPLIVECD। Media output: এ Create ISO image সিলেক্ট করে ISO ইমেজটি কোথায় সেব হবে তা দেকিয়ে দিন।
৪. Plugins বাটনে ক্লিক করুন। Add বাটনে ক্লিক করে একটু আগে ডাউনলোড করা
xpe-1.0.7.cab ফাইলটি দেখিয়ে দিন। OK করুন। প্লাগইন লিস্ট থেকে nu2shell এ ক্লিক করুন। দেখবেন এটি এনাবল অবস্থায় আছে। Enable/Disable বাটনে ক্লিক করে nu2shell কে ডিজেবল করে দিন। একইভাবে Startup Group কে ও ডিজেবল করে দিন। Close বাটন ক্লিক করুন। এই ধাপটা একটু সতর্কতার সাথে করুন যেন ভুল না হয়।
৫. এবার Build বাটনে ক্লিক করুন। এক্সপির লাইভ সিডির ISO ফাইল তৈরী হওয়া শুরু হবে। এই ধাপে কিছুক্ষন সময় লাগবে। অপেক্ষা করুন। কাজ ঠিকঠাক মত শেষ হয়ে গেলে আপনি Pebuilder.iso নামে একটা ফাইল পাবেন(ISO ইমেজ যেখানে সেভ হওয়ার জন্য দেখিয়ে দিয়েছিলেন)। এইধাপে সাধারনত কোন সমস্যা হওয়ার কথা না।
৬. Pebuilder.iso ফাইলটাকে Nero বা কোন সিডিবার্নিং সফটওয়্যার দিয়ে ইমেজ হিসেবে সিডিতে রাইট করুন। খেয়াল রাখবেন ডাটা সিডি হিসেবে রাইট করলে কিন্ত কাজ করবে না।
হয়ে গেল আপনার Windows XP Live CD। এবার সিডিটি সিডিরমে রেখে BIOS এ 1st Boot CD সিলেক্ট করলেই কাজ হয়ে যাবে।
আরো জানার জন্য মেইল করতে পারেন johnautomation2@gmail.com

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s